Assisted Bangla Reading - Mouseover

<< Back to Index of Assisted Bangla Reading

নরহরি দাস
Narahari Das
by Upendrakishore Ray Chaudhury
 
যেখানে মাঠের পাশে বন আছে,আর বনের ধারে মস্ত পাহাড় আছে, সেইখানে, একটা গর্তের ভিতরে একটি ছাগলছানা থাকতসে তখনো বড় হয়নি, তাই গর্তের বাইরে যেতে পেত না

বাইরে যেতে চাইলেই তার মা বলত,'যাসনে! ভালুকে ধরবে, বাঘে নিয়ে যাবে, সিংহে খেয়ে ফেলবে!' তা শুনে তার ভয় হত, আর সে চুপ করে গর্তের ভিতরে বসে থাকতোতারপর সে একটু বড় হল, তার ভয়ও কমে গেলতখন তার মা বাইরে চলে গেলেই সে গর্তের ভিতর থেকে উঁকি মেরে দেখতশেষে একদিন একেবারে গর্তের বাইরে চলে এল

সেইখানে এক মস্ত ষাঁড় ঘাস খাচ্ছিলছাগলছানা আর এত বড় জন্তু কখনো দেখেনিকিন্তু তার শিং দেখেই সে মনে করে নিল, ওটাও ছাগল, খুব ভালো জিনিস খেয়ে এত বড় হয়েছেতাই সে ষাঁড়ের কাছে গিয়ে জিগগেস করল, 'হ্যাঁগা,তুমি কি খাও ?'

ষাঁড় বললে,'আমি ঘাস খাই ৷'

ছাগলছানা বললে,'ঘাস তো আমার মাও খায়সে তো তোমার মতো এত বড় হয় নি ৷'

ষাঁড় বললে,'আমি তোমার মায়ের চেয়ে ঢের ঢের ভালো ঘাস অনেক বেশি করে খাই ৷'

ছাগলছানা বললে,'সে ঘাস কোথায় ?'

ষাঁড় বললে,' বনের ভিতরে ৷'

ছাগলছানা বললে,'আমাকে সেখানে নিয়ে যেতে হবে ৷' একথা শুনে ষাঁড় তাকে নিয়ে গেলসেই বনের ভিতরে খুব চমৎকার ঘাস ছিলছাগলছানার পেটে যত ঘাস ধরল, সে তত ঘাস খেল

খেয়ে তার পেট এমনি ভারি হল যে সে আর চলতে পারে না

সন্ধে হলে ষাঁড় এসে বললে,'এখন চল বাড়ি যাই ৷'

কিন্তু ছাগলছানা কি করে বাড়ি যাবে ? সে চলতেই পারে না

তাই সে বললে,'তুমি যাও,আমি কাল যাবো ৷'

তখন ষাঁড় চলে গেলছাগলছানা একটি গর্ত দেখতে পেয়ে তার ভিতরে ঢুকে রইল

সে গর্তটা ছিল এক শিয়ালেরসে তার মামা বাঘের বাড়ি নিমন্ত্রণ খেতে গিয়েছিলঅনেক রাত্রে বাড়ি ফিরে এসে দেখে,তার গর্তের ভিতরে কি রকম একটা জন্তু ঢুকে রয়েছে

ছাগলছানাটা কালো ছিল, তাই শিয়াল অন্ধকারের ভিতর ভাল করে দেখতে পেল না

সে ভাবল, বুঝি রাক্ষস-টাক্ষস হবেএই মনে করে সে ভয়ে-ভয়ে জিগগেস করল,'গর্তের ভিতর কে ?'

ছাগলছানাটা ভারি বুদ্ধিমান ছিল, সে বললে-
লম্বা লম্বা দাড়ি
ঘন ঘন নাড়ি
সিংহের মামা আমি নরহরি দাস
পঞ্চাশ বাঘে মোর এক-এক গ্রাস !

শুনেই তো শিয়াল 'বাবা গো!' বলে সেখান থেকে দে ছুট ! এমন ছুট দিল যে একেবারে বাঘের ওখানে গিয়ে তবে সে নিঃশ্বাস ফেললে

বাঘ তাকে দেখে আশ্চর্য হয়ে জিজ্ঞেস করলে,'কি ভাগ্নে, এই গেলে, আবার এখুনি এত ব্যস্ত হয়ে ফিরলে যে ?'

শিয়াল হাঁপাতে হাঁপাতে বললে,'মামা, সর্বনাশ তো হয়েছে, আমার গর্তে এক নরহরি দাস এসেছেসে বলে কিনা যে পঞ্চাশ বাঘে তার এক গ্রাস !'

তা শুনে বাঘ ভয়ানক রেগে বললে,'বটে, তার এত বড় আস্পর্ধা ! চলতো ভাগ্নে! তাকে দেখাব কেমন পঞ্চাশ বাঘে তার এক গ্রাস !'

শিয়াল বললে,'আমি আর সেখানে যেতে পারবো না, আমি সেখানে গেলে যদি সে হাঁ করে আমাদের খেতে আসে, তা হলে তুমি তো দুই লাফেই পালাবেআমি তো তেমন ছুটতে পারবো না, আর সে বেটা আমাকেই ধরে খাবে ৷' বাঘ বললে,'তাও কি হয়? আমি কখনো তোমাকে ফেলে পালাবো না ৷' শিয়াল বললে,'তবে আমাকে তোমার লেজের সঙ্গে বেঁধে নিয়ে চল ৷' তখন বাঘ তো শিয়ালকে বেশ করে লেজের সঙ্গে বেঁধে নিয়েছে, আর শিয়াল ভাবছে,'এবার আর বাঘমামা আমাকে ফেলে পালাতে পারবে না ৷'

এমনি করে তারা দুজনে শিয়ালের গর্তের কাছে এলছাগলছানা দূর থেকেই তাদের দেখতে পেয়ে শিয়ালকে বললে-
দূর হতভাগা! তোকে দিলুম দশ বাঘের কড়ি,
এক বাঘ নিয়ে এলি লেজে দিয়ে দড়ি !

শুনেই তো ভয়ে বাঘের প্রাণ উড়ে গিয়েছেসে ভাবলে যে, নিশ্চয় শিয়াল তাকে ফাঁকি দিয়ে নরহরি দাসকে খেতে দেবার জন্য এনেছেতারপর সে কি আর সেখানে দাঁড়ায় ! সে পঁচিশ হাত লম্বা এক লাফ দিয়ে শিয়ালকে সুদ্ধ নিয়ে পালালশিয়াল বেচারা মাটিতে আছাড় খেয়ে, কাঁটার আঁচর খেয়ে, খেতের আলে ঠোক্কর খেয়ে একেবারে যায় আর কি ! শিয়াল চেঁচিয়ে বললে,'মামা, আল ! মামা, আল !' তা শুনে বাঘ ভাবে বুঝি সেই নরহরি দাস এল, তাই সে আরো বেশি করে ছোটেএমনি করে সারারাত ছুটোছুটি করে সারা হল

সকালে ছাগলছানা বাড়ি ফিরে এল

শিয়ালের সেদিন ভারি সাজা হয়েছিলসেই থেকে বাঘের উপর তার এমনি রাগ হল যে, সে রাগ আর কিছুতেই গেল না

Narahari Das
English Translation
 
Right where the meadow met the jungle and the jungle lay beside the hill, a goat kid used to live in a small hole. He was still too small and so he was not allowed to go out. If he wished to go out, mamma goat forbade him, “Don't go out. The bear might catch you, the tiger might kill you or the lion might eat you.” That was enough to scare him and he stayed inside the hole. But as he grew a little older, his fear waned. Whenever his mother was out, he would peep out. At last, one day, he came out.

He saw one mighty bull grazing right there. The kid had never seen such a big animal. From the size of his horns the kid assumed that this was also a goat that might have grown big by eating more. He asked the bull, “What do you eat?”

The bull said, “I eat grass.”

The kid was surprised, “My mother also eats grass. But she is not as big as you are!”

The bull replied, “The grass I eat is better; I also eat much more than your mother.”

The kid was curious, “Where can you get that grass?”

The bull said, “On the other side of the jungle.”

The kid insisted, “You have to take me there.”

So the bull took him to the jungle.

The grass in the jungle was so tasty! The kid ate far too much of the grass. But after that, his stomach felt heavy and he could not walk.

At dusk, the bull said to him, “It's time to go home.”

But the kid was barely able to walk, how would he go back!

So he said, “You carry on, I will go tomorrow.”

The bull went away. The kid found a cave for himself and took shelter in it.

But the cave belonged to a jackal. He had gone to his uncle's house for a feast. At night he came back and found that someone had taken over his hole. The kid was jet black, so the jackal could not even see him well in the dark. He wondered if it might be a monster! A trifle scared, he asked timidly, “Who is that in my cave?”

The kid was very sharp. He answered:

“Long goatee Narahari Das,

The lion is my nephew.

I eat tigers for breakfast;

Fifty would be too few!”

Hearing this, the jackal jumped with fear. “Good heavens!” he said and fled at once. He ran so hard that he took his first breath only after reaching his uncle’, —the tiger’'s— den.

The tiger was startled. He asked, “What is up, nephew? You left only a short while ago; what brought you back so quickly?”

The jackal was panting. Somehow he replied, “Uncle, I am finished. Narahari Das is in my cave. He eats fifty tigers in one gulp!”

The tiger was upset, “How dare he say that! Nephew, let's go. I will show him what it takes to eat fifty tigers in one gulp.”

The jackal dug in his heels. “I am not going back. If he comes after us, you would run away in one leap. I cannot run so fast and he would definitely eat me up.”

The tiger said, “How can you think like that? I would never leave you behind, my dear nephew.”

The jackal reasoned, “All right, then tie me up with your tail.”

The tiger did so. The jackal thought, “Now uncle cannot leave me behind even if he wants to.”

Thus tied to each other, they reached the jackal's cave. The kid saw them from a distance and shouted:

“Worthless cheat! Ten tigers, you agreed to fetch!

Now you’'ve got back with only one tied to your tail?”

The tiger got the scare of his life. He thought the jackal had fooled him and brought him there so that Narahari Das could eat him up. Could he wait around after that? He cleared fifty feet in one big leap, with the jackal still tied to his tail. The poor jackal was thrown around, pricked by thorns, thrashed at the dikes that left him gasping. He shouted, ”Uncle dike! Uncle dike!” That scared the tiger even more. He heard: “Dive! Dive!” He thought Narahari Das was chasing them. So he dived and ran harder. All through the night they ran around in this way.

In the morning, the kid went back home.

It was a rough night for the jackal. And for that he was very cross with the tiger.

webstatistics